fbpx
Ad imageAd image

বাংলালিংক তাদের  আয় বাড়িয়েছে ১৫.১ শতাংশ

বাংলালিংক তাদের আয় বাড়িয়েছে ১৫.১ শতাংশ

কিশোরগঞ্জ পোস্ট
কিশোরগঞ্জ পোস্ট

বাংলালিংক টানা ৬ প্রান্তিকে দুই অঙ্কের প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে।

দেশজুড়ে ৪ কোটি ৩০ লাখ গ্রাহকের আস্থা ও গ্রহণযোগ্যতা অর্জন করেছে বাংলালিংকের বিভিন্ন ডিজিটাল সেবা। তৃতীয় প্রান্তিকে মোবাইল ডেটা থেকে বাংলালিংকের আয় বেড়েছে ২৮ শতাংশ। উন্নত ও উদ্ভাবনী ডিজিটাল সেবা প্রদানের মাধ্যেমে বাংলালিংক এই ধারাবাহিক সাফল্য অর্জন করেছে বলে বলেছেন বাংলালিংকের কর্মকর্তারা।

২০২৩ সালের তৃতীয় প্রান্তিকে প্রতিষ্ঠানটির মোট আয় ১৫ দশমিক ১ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ৫৮৮ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে।

বাংলালিংকের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার এরিক অস প্রতিষ্ঠানটির কর্পোরেট অফিস টাইগার্স ডেনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তৃতীয় প্রান্তিকের এই ফলাফল ঘোষণা করেন।

- Advertisement -

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলালিংকের চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান ও বাংলালিংকের চিফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার জেম ভেলিপাসাওগ্লু।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, প্রতিষ্ঠানটির ফোরজি ব্যবহারকারীর বাৎসরিক প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৩১ শতাংশ। দেশজুড়ে বাংলালিংকের ১৫ হাজারেরও বেশি টাওয়ারের বিশাল অবকাঠামোর ফলে এই বৃদ্ধি সম্ভব হয়েছে।

এই প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রে বাংলালিংকের বিভিন্ন ডিজিটাল সেবার ভূমিকা রয়েছে। এর মধ্যে অন্যতম হল ডিজিটাল বিনোদনের প্ল্যাটফর্ম টফি ও সুপার অ্যাপ মাইবিএল। গত বছরের তুলনায় এই বছরে টফির ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৭২.২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। এর মাধ্যমে টফি এখন গুগল প্লে- স্টোরের সকল ক্যাটাগরির মধ্যে এক নম্বর প্ল্যাটফর্ম হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে।

এরিক অস বলেন, ‘বাংলালিংক বিভিন্ন রকম উদ্ভাবনী সেবা প্রদান করে তার ধারাবাহিকতার প্রবৃদ্ধি বজায় রেখেছে। কোটি কোটি গ্রাহকের ডিজিটাল অগ্রযাত্রার অবিচ্ছেদ্য অংশ হওয়ার জন্য বাংলালিংক সর্বদা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। উদ্ভাবনী ডিজিটাল সেবা ও দ্রুততম ফোরজি নেটওয়ার্ক, দেশব্যাপী একটি নির্ভরযোগ্য অপারেটর হিসাবে আমাদের অবস্থানকে আরও সুদৃঢ় করেছে।’

জানা যায়, কানেক্ট, কন্টেন্ট, কেয়ার, কমার্স, কমিউনিটি ও কোর্স-এর সমন্বয়ে গঠিত ‘সিক্স সি মডেল’-এর মাধ্যমে মাইবিএল সুপার অ্যাপ আরও বেশি সংখ্যক গ্রাহকের কাছে পৌঁছে গেছে। গত এক বছরে মাইবিএল এর গ্রাহক সংখ্যা বৃদ্ধির হার ৪৮ শতাংশ। এই সুপারঅ্যাপ এর মাধ্যমে সাড়ে ৭ লাখ ব্যবহারকারীর কাছে স্বাস্থ্যসেবা, বিনোদন এবং শিক্ষামূলক বিভিন্ন কনটেন্ট পৌঁছে যাচ্ছে।

- Advertisement -

এছাড়া জনবল উন্নয়নে ধারাবাহিক বিনিয়োগও বাংলালিংকের প্রবৃদ্ধিতে অবদান রেখেছে। চাকরির ক্ষেত্রে দেশের তরুণদের পছন্দের সেরা ৫টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বাংলালিংক অবস্থান করে নিয়েছে, যা আগে ১৮ তম ছিল।

Subscribe

Subscribe to our newsletter to get our newest articles instantly!

ফলো করুন

সোশ্যাল মিডিয়াতে আমাদের সাথে থাকুন
জনপ্রিয় খবর
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *