fbpx
Ad imageAd image

টেক্সাসের হিউস্টনে শক্তিশালী ঝড়ের আঘাতে ৪ জনের মৃত্যু

কিশোরগঞ্জ পোস্ট
কিশোরগঞ্জ পোস্ট

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের দক্ষিণ-পূর্বে বজ্রঝড়ে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। পাশাপাশি বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন রয়েছে প্রায় ১০ লাখ বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। হিউস্টনের মেয়র জন হুইটমায়ারের উদ্ধৃতি দিয়ে গণমাধ্যমটি বলেছে, হারিকেন আইকের সমতুল্য প্রতি ঘণ্টায় ১০০ মাইল গতির ঝড়ে শহরের কেন্দ্রস্থলে যথেষ্ট ক্ষতি হয়েছে।

ঝড়ে গাছ থেকে পড়ে দুজনের এবং ক্রেন পড়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। উপসাগরীয় উপকূলের জন্য বন্যা সতর্কতাসহ ঝড়টি এখন প্রতিবেশী লুইজিয়ানাতে চলে গেছে। হিউস্টনে ট্রাফিক লাইট নিভে গেছে, অফিসের জানালা উড়ে গেছে এবং শহরের রাস্তা জুড়ে কাঁচ ছড়িয়ে পড়েছে।

- Advertisement -

ঝড়ে গাছ থেকে পড়ে দুজনের এবং ক্রেন পড়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। উপসাগরীয় উপকূলের জন্য বন্যা সতর্কতাসহ ঝড়টি এখন প্রতিবেশী লুইজিয়ানাতে চলে গেছে। হিউস্টনে ট্রাফিক লাইট নিভে গেছে, অফিসের জানালা উড়ে গেছে এবং শহরের রাস্তা জুড়ে কাঁচ ছড়িয়ে পড়েছে।

আগামীকাল কাজে যাবেন না, যদি না আপনি মূল কর্মী হন। ঘরে থাকুন, আপনার বাচ্চাদের যত্ন নিন। আমাদের জরুরি কর্মীরা ২৪ ঘণ্টা কাজ করবেন।’

হিউস্টনের ন্যাশনাল ওয়েদার সার্ভিস অফিস অনুসারে, সন্ধ্যার দিকে একাধিক কাউন্টির জন্য আকস্মিক বন্যা ও তীব্র বজ্রঝড়ের সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

- Advertisement -

এ ছাড়া শহরের অগ্নিনির্বাপক প্রধান জানিয়েছেন, শহরের অনেক বাসিন্দা তাদের ফোন দিয়েছে, যার অধিকাংশই ছিল গ্যাস লিক এবং তার পড়ে থাকার বিষয়ে। ইউটিলিটি ট্র্যাকার পাওয়ারআউটেজ ডট ইউএসের মতে, বৃহস্পতিবার গভীর রাত পর্যন্ত টেক্সাসে প্রায় ১০ লাখ গ্রাহক বিদ্যুৎবিহীন ছিল। অধিকাংশ বিভ্রাট ছিল হ্যারিস কাউন্টিতে, যেখানে হিউস্টন শহরের অবস্থান। শহরটিতে ৪৭ লাখেরও বেশি মানুষ বাস করে। এ ছাড়া লুইজিয়ানায় দুই লাখ ১৫ হাজার পরিবার বিদ্যুৎবিহীন রয়েছে।অন্যদিকে উপসাগরীয় উপকূলের বিভিন্ন অংশে তিন কোটিরও বেশি মানুষ শুক্রবার তীব্র আবহাওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে বলেও বিবিসি জানিয়েছে। গণমাধ্যমটির তথ্য অনুসারে, গত মাসে আরেকটি মারাত্মক ঝড় শহরের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়েছিল। তখন টর্নেডো ক্যাটিতে একজন নিহত এবং ১০ জন আহত হয়।

- Advertisement -

Subscribe

Subscribe to our newsletter to get our newest articles instantly!

ফলো করুন

সোশ্যাল মিডিয়াতে আমাদের সাথে থাকুন
জনপ্রিয় খবর
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *