fbpx
Ad imageAd image

কে হচ্ছেন কিশোরগঞ্জ-১ আসনের নৌকার মাঝি?

কিশোরগঞ্জ পোস্ট
কিশোরগঞ্জ পোস্ট
কে হচ্ছেন কিশোরগঞ্জ ১ আসনের নৌকার মাঝি

আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘিরে সরগরম হয়ে উঠেছে কিশোরগঞ্জ-১ আসনের রাজনৈতিক প্রাঙ্গন। প্রার্থিতা জানান দিতে মাঠে নেমে পড়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা।

২০০৮ সালের সংসদ নির্বাচনের আগে সাবেক কিশোরগঞ্জ-৩ আসনের (সদর) সঙ্গে হোসেনপুর উপজেলা যুক্ত করে নতুন করে কিশোরগঞ্জ-১ আসন বিন্যস্ত করা হয়। এর আগে হোসেনপুর উপজেলা পাকুন্দিয়া, উপজেলার সঙ্গে যুক্ত ছিল। এই আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ৩০ হাজার ৮৪ জন। কিশোরগঞ্জ জেলার ছয়টি আসনের মধ্যে কিশোরগঞ্জ-১ আসনটি হলো আ.লীগের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আসন।

মুক্তিযুদ্ধকালীন সরকারের প্রথম অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম স্বাধীনতার পর প্রথম সংসদ নির্বাচনে সদর থেকে নির্বাচিত হন।

সদর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়ন এবং হোসেনপুর উপজেলার ৬টি ইউনিয়ন নিয়ে কিশোরগঞ্জ-১ আসন গঠিত। আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং এলজিআরডি মন্ত্রী প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ছিলেন এ আসনের এমপি।

- Advertisement -

কিশোরগঞ্জ-১ হচ্ছে কিশোরগঞ্জ জেলার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আসন। আর এই আসনে নির্বাচনকে সামনে রেখে দলীয় মনোনয়ন লাভের আশায় আগেভাগেই নিজেদের তৎপরতা দেখানোর চেষ্টা করছেন মনোনয়ন প্রত্যাশী সম্ভাব্য প্রার্থীরা। শহরে রং-বেরঙের ব্যানার-পোস্টার সাঁটানোর পাশাপাশি জেলার এবং কেন্দ্রীয় নেতাদের মনোযোগ আকর্ষণের চেষ্টা করছেন তারা। আ.লীগ মনোনীত নৌকার মাঝি হবার জন্য অংশ নিচ্ছেন বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা।

মনোনয়ন পাওয়ার জন্য এলাকায় নিজেদের সম্ভাব্য প্রার্থিতার জানান দিচ্ছেন প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ভাই মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলাম ও চাচাতো ভাই জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু। এ ছাড়া সাবেক রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ছেলে রাসেল আহমেদ তুহিনও এ আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন চাইছেন। তবে বর্তমানে এমপি ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি, কৃষিবিদ মসিউর রহমান হুমায়ুন ও মেজর জেনারেল শাফায়াতুল ইসলামের নাম রয়েছে আলোচনায়।

কৃষিবিদ মশিউর রহমান হুমায়ুন বলেন, আমি দলের দুর্দিনে ছিলাম, এখন সুদিনে আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকব। আমাদের প্রিয় নেত্রী আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা আমাকে ২০১৮ সালে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম সাহেবের সাথে যৌথভাবে মনোনয়নে নাম দেওয়ার পর আমি কিশোরগঞ্জ-১ আসনের জনগণের হয়ে কাজ করে আসছি। নেত্রী আমার ওপর যে আস্থা রেখেছিলেন আমি তার মর্যাদা রক্ষার চেষ্টা করেছি।

সংসদীয় নির্বাচনী ইতিহাস থেকে জানা যায়, স্বাধীনতার পর এগারোটি সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সাতবার, বিএনপি তিনবার ও জাতীয় পার্টি একবার এই আসন থেকে বিজয়ী হয়। স্বাধীনতার পর দ্বিতীয় সংসদে ১৯৭৯ সালে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ডা. ফজলুল করিম, ১৯৮৬ সালে আওয়ামী লীগের অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, ১৯৮৮ সালে জাতীয় পার্টির আলমগীর হোসেন, ১৯৯১ সালে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির মাওলানা আতাউর রহমান খান, ১৯৯৬ সালের ১৫ই ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির মাসুদ হিলালী, একই বছরের ১২ই জুন অনুষ্ঠিত নির্বাচনে এবং ২০০১, ২০০৮,২০১৪ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম পর পর নির্বাচিত হন। 

কিশোরগঞ্জ-১ (সদর-হোসেনপুর) আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য হচ্ছেন ডা: সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি। তিনি এবারো আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন চেয়েছেন। কিশোরগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি বলেন, আমার ভাই সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এ আসনের এমপি ছিলেন। আমি দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই আমার বড় ভাইয়ের অসমাপ্ত কাজগুলো করার চেষ্টা করেছি। আগামী নির্বাচনে নেত্রী যদি আমাকে মনোনয়ন দেন, তবে জয়ী হয়ে জনগণের পাশে থেকে তাদের সেবা করবো।

- Advertisement -

তবে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে জোর আলোচনায় রয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারি কৃষিবিদ মসিউর রহমান হুমায়ুন।

কৃষিবিদ মসিউর রহমান হুমায়ূন ঢাকা মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে রয়েছে তার নিবিড় যোগাযোগ। তা ছাড়া অসহায় হতদরিদ্র রোগীদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের চেক প্রদানে তার রয়েছে সুখ্যাতি।

এ আসনে এছাড়াও মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে আলোচনায় রয়েছেন জেলা আ.লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু, মেজর জেনারেল (অব:) সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলাম ও সাবেক রাষ্ট্রপতি পুত্র রাসেল আহমেদ তুহিন।

- Advertisement -

কিশোরগঞ্জ-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ছোট ভাই মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ সাফায়েতুল ইসলাম ও তার ছোট বোন এমপি ডা: সৈয়দা জাকিয়া লিপি নূর এবং চাচাতো ভাই সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু,  সাবেক প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদের মেজো ছেলে রাসেল আহমেদ তুহিন, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী কৃষিবিদ মসিউর রহমান হুমায়ুন। 

তাদের মধ্যে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ছোট ভাই মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ সাফায়েতুল ইসলামের পক্ষে সাবেক ছাত্রনেতা জহির মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। এ ছাড়া রাসেল আহমেদ তুহিন নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন।

Subscribe

Subscribe to our newsletter to get our newest articles instantly!

ফলো করুন

সোশ্যাল মিডিয়াতে আমাদের সাথে থাকুন
জনপ্রিয় খবর
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *