fbpx
Ad imageAd image

কিশোরগঞ্জ-৬ আসনের নৌকার মাঝি প্রয়াত রাষ্ট্রপতি পুত্র পাপন

কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) আসন থেকে আওয়ামী লীগের পক্ষে শুধুমাত্র নাজমুল হাসান পাপনই মনোনয়নপত্র কিনে সেটি পূরণ করে জমা দিয়েছেন। আর কেউ আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপত্র কিনে নাই।

কিশোরগঞ্জ পোস্ট
কিশোরগঞ্জ পোস্ট
কিশোরগঞ্জ ৬ আসনের নৌকার মাঝি সাবেক রাষ্ট্রপতি পুত্র পাপন

কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) আসনে একাই আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র নিয়েছেন নাজমুল হাসান পাপন। এরই মধ্যে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র বিক্রি শেষ হয়েছে। সেই হিসেবে তিনি এই আসন থেকে নৌকার প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের অনুমতি পেতে যাচ্ছেন।

জেলা নির্বাচন অফিসার মো. আশরাফুল আলম কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমাদের কাছে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের পক্ষে শুধুমাত্র নাজমুল হাসান পাপনই মনোনয়নপত্র কিনে সেটি পূরণ করে জমা দিয়েছেন। আর কেউ আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়নপত্র কিনেনি।

নাজমুল হাসান পাপন প্রয়াত রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমানের ছেলে এবং বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি। কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) আসন থেকে ছয় বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন জিল্লুর রহমান।

২০০৯ সালে দেশের ১৯তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার পর এ আসনে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে তার ছেলে নাজমুল হাসান পাপন বিজয়ী হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

- Advertisement -

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সায়দুল্লাহ মিয়া বলেন, ভৈরব-কুলিয়ারচরবাসী প্রয়াত রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমানের পরিবারের প্রতি ভালোবাসা ও আস্থা আছে। ফলে রাষ্ট্রপতির ছেলে পাপনের বিরুদ্ধে দলীয় মনোনয়ন যুদ্ধে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী নেই। আসনটিতে শুধুমাত্র একজনই দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে ফরম কিনে জমা দিয়েছেন। আসন্ন সংসদ নির্বাচনে তিনি বিপুল ভোটে জয়ী হবেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম সেন্টু বলেন, ভৈরব-কুলিয়ারচর আসন নৌকার ঘাঁটি। এ আসন থেকে টানা ছয়বার প্রয়াত রাষ্ট্রপতি মো. জিল্লুর রহমান সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। ষষ্ঠবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে দেশের ১৯তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন। তারই সন্তান বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি বিগত ১৫ বছর এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। ভৈরব ও কুলিয়ারচরবাসীর একমাত্র আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন ফর্ম কিনে জমা দিয়েছেন তিনি। মনোয়নযুদ্ধে তার কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী নেই। আসন্ন সংসদ নির্বাচনে ভোটাররা বিপুল ভোটে নৌকা মার্কায় এ আসন থেকে বিজয়ী করবেন।

Subscribe

Subscribe to our newsletter to get our newest articles instantly!

ফলো করুন

সোশ্যাল মিডিয়াতে আমাদের সাথে থাকুন
জনপ্রিয় খবর
মতামত দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *